রামগড়ের পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক

গতকাল ৩০ জুন শুক্রবার দিবাগত রাতে খাগড়াছড়ির জেলার রামগড় ‍উপজেলার ১নং সদর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের অন্তর্গত সৌনাই আগা ও ব্রত চন্দ্র কার্বারী পাড়াতে পাশ্ববর্তী কালাঢেবা নামক এলাকা থেকে শতাধিক সেটলার সংবদ্ধভাবে হামলা চালিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। গ্রাম দুটির মধ্যে সোনাই আগা মারমাদের গ্রাম, আর ব্রত চন্দ্র কারবারি পাড়া হচ্ছে ত্রিপুরাদেরর গ্রাম। রাত ১১ টার পর সোনাই আগা ও ব্রত চন্দ্র কার্বারী পাড়াতে সেটেলার কতৃক হামলা, লুটপাট ও আদিবাসীদের মারধরের খবর পাওয়া গেছে।

সেটেলারদের সাথে হামলায় স্থানীয় চৌচালা বিজিবি ক্যাম্প থেকে বিজিবি সদস্যরাও অংশ নিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে স্থানীয়রা। বিজিবির উপস্হিতিতে সেটলাররা পাহাড়িদের আস্তানা জ্বালিয়ে দাও পুড়িয়ে দাও বলে উস্কানিমূলক স্লোগান দেয়। এ সময় আতঙ্কগ্রস্থ আদিবাসীরা এসময় বৃষ্টিতে ভিজে জঙ্গলে আশ্রয় নেয়। রাত ১টার সেটেলাররা লামকু রোডে এবং বিজিবি-পুলিশ সোনাইআগা প্রাইমারি স্কল মাঠে অবস্থান করছিল বলে জানা গেছে। পরবর্তীতে পরিস্থিতি শান্ত হলে রাত সাড়ে তিনটার দিকে ডিউটিরত বিজিবি ও পুলিশ সদস্যরা সোনাইআগা পাড়া ও ব্রতচন্দ্র পাড়া থেকে চলে যায়।

শনিবার ভোরে আজল দেওয়ান ও থুইকেয়া চিং এর ফেইসবুক ওয়াল থেকে জানা যায় পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক। ব্রতচন্দ্র পাড়ার খাম্প্র ত্রিপুরাকে মারধর করেছে সেটলাররা। এসময় ব্রতচন্দ্র পাড়ায় ত্রিপুরা কয়েক পরিবার ভয়ে ঐপারে ত্রিপুরা রাজ্যে পালিয়ে গেছে। ব্রতচন্দ্র পাড়ায় ৮/৯দোকান ঘর হামলা চালিয়ে লুটপাট করেছে এবং সোনাইআগা মারমা পাড়াতে গ্রামবাসী শক্ত অবস্হানের কারণে তেমন হামলা করতে পারেনি সেটলাররা।

রাতের ঝামেলার রেশ আপাতত আর নেই। যা হওয়ার কাল রাতেই হয়েছে। ক্ষয় ক্ষতির পরিমান এখনো জানা যায়নি। গাড়ি চলাচল সাভাবিক আছে। দুর্গম এলাকা হওয়ায় পুরো খবর নেয়া যাচ্ছে না। তবে বড় ধরণের কোন ক্ষয় ক্ষতির কোন খবর পাওয়া যায় নি। দু একটি বাড়িতে লুটপাটের খবর পাওয়া গেছে। আরও বিস্তারিত জানার চেষ্টা চলছে। ঘটনার সুত্রপাত সর্ম্পকে এখনো বিস্তারিত কিছু জানা যায় নি।

সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুকে থেকে এখানে প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর...

Ads

Recommended For You

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!