রাঙ্গামাটিতে চিত্রাংকন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের সমাপনী

স্টাফ রিপোর্টার, রাঙামাটি

রাঙ্গামাটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্টীর ইন্সটিটিউটের উদ্যোগে জেলা পর্যায়ে ৩দিনব্যাপী চিত্রাংকন ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতার পুরস্কার বিতরনী ও সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
রবিবার (১১ ফেব্রয়ারী) সন্ধ্যায় ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্টীর ইন্সটিটিউটে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ীদের মাঝে পুস্কার বিতরন করেন।
এ সময় ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইন্সটিটিউটের পরিচালক রুনেল চাকমা, রাঙ্গামাটি বিসিকের সহকারী ব্যবস্থাপক স্বপন ত্রিপুরা, উপজাতীয় সাংস্কৃতিক ইন্সটিটিউটের প্রাক্তন পরিচালক সুগত চাকমা উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা বলেন, বর্তমান সরকার পার্বত্যবাসীর প্রতি খুবই আন্তরিক। তিনি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীদের ভাষা ও সংস্কৃতি রক্ষায় আন্তরিকভাবে কাজ করে চলেছে। কারন একটি জাতীর পরিচয় তার ভাষা ও সংস্কৃতি। তিনি বলেন, নৃ-গোষ্ঠীরা যাতে নিজ নিজ ভাষা ও অক্ষরে পড়ালেখা করতে পারে সে জন্য বর্তমান সরকার বিনামূল্যে নৃ-গোষ্ঠীদের নিজস্বভাষায় বই বিতরন করছে। তারই ধারাবাহিকতায় রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ বিদ্যালয়ের নৃ-গোষ্টী শিক্ষকদের প্রশিক্ষন প্রদান করছে। এ ধারা অব্যহৃত থাকবে। তিনি বলেন, নৃ-গোষ্ঠীরা যাতে তাদের নিজস্ব সংস্কৃতিকে ভুলে না যায় সেজন্য সংস্কৃতি তাদের চর্র্চায় সাংস্কৃতিক ইন্সটিটিউটের মাধ্যমে বিভিন্ন প্রশিক্ষন ও প্রতিযোগীতার আয়োজন করছে। তিনি অংশগ্রহনকারী বিজয়ীদের উদ্দেশ্যে বলেন, নিজ নিজ জাতীগোষ্ঠীর সংস্কৃতি রক্ষায় এখন থেকে যেভাবে চর্চা ও প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহন করে তোমরা বিজয়ী হচ্ছো তা আগামীতে জেলা, বিভাগীয় ও দেশ বিদেশে প্রসার ঘটাতে চেষ্ঠা চালিয়ে যাবে। কারন একটি মন্ত্রির চাইতে একজন শিল্পীর সুনাম অনেক দূর পৌছায়।
এর আগে অনুষ্ঠানের প্রারম্ভে অংশগ্রহনকারী প্রতিযোগীদের পরিবেশনায় সঙ্গীত ও নৃত্য পরিবেশিত হয়।

সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুকে থেকে এখানে প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর...

Ads

Recommended For You

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!