মানবিক কল্যাণ সংঘ থেকে চারজন মুমুর্ষ রোগীকে চিকিৎসার জন্য নগদ অর্থ প্রদান

গত ১৬/০৯/২০১৭ইং রোজ শনিবার বিকাল ৪-০০ঘটিকার সময় মানবিক কল্যাণ সংঘ (মাকস) সংগঠন থেকে চারজন রোগীকে চিকিৎসা করার জন্য নগদ অর্থ প্রদান করা হয়।
 
খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা পরিষদের সন্মাতি উপজেলা চেয়ারম্যান বাবুঃ চঞ্চুমনি চাকমা ও খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা পরিষদের সন্মানিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মিসেসঃ বিউটি রাণী ত্রিপুরা উপস্থিতিতে রোগীর অভিভাবকদের হাতে মানবিক কল্যাণ সংঘ (মাকস) এর সভাপতি জ্যোতিসারা ভিক্ষু, সহ-সভাপতি জ্যোতিশ্রী ভিক্ষু, সহ-সভাপতি শান্তিময় চাকমা, সাধারণ সম্পাদক বুদ্ধশ্রী ভিক্ষু ও ডহেন ত্রিপুরা নগদ অর্থ প্রদান করা হয়। এসময় সংগঠনের সভাপতি জ্যোতিসারা ভিক্ষু রোগীদের অবস্থা ও চিকিৎসা সম্পর্কে খোঁজ খবর নেন এবং রোগীদের চিকিৎসার জন্য সংগঠনের তহবিল সংগ্রহ চলমান থাকবে বলে জানান।
এর আগে গত ০৭/০৯/২০১৭ ইং রোজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭-০০ঘটিকার সময় খাগড়াছড়ি কালচার ইনস্টিটিউট এ মানবিক কল্যাণ সংঘ উদ্যোগে চারজন রোগীকে চিকিৎসা সহায় প্রদানের জন্য একটা কনসার্ট অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি আসনে মাননীয় সংসদ সদস্য বাবুঃ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা (এমপি), বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বাবুঃ চঞ্চুমনি চাকমা, পানছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সর্বোত্তম চাকমা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এবং সরকারি বে-সরকারি প্রতিস্থানের প্রতিনিধীরা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, সংগঠনের সহ-সভাপতি বাবুঃ শান্তিময় চাকমা। এতে স্বাগত বক্তব্য দিয়ে সংগঠনের উপদেষ্টা ও খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা পরিষদের সন্মানিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মিসেস বিউটি রাণী ত্রিপুরা চারজন রোগীকে চিকিৎসা করার জন্য ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকলকে আর্থিকভাবে সহযোগীতা করে এগিয়ে আসার জন্য আহ্বান জানান।
 
ধর্মীয় গুরু বৌদ্ধ ভিক্ষুদের এমন মহৎ উদ্যোগকে প্রশংসা করে মাননীয় সংসদ সদস্য বাবু কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা (এমপি) বলেন, আমি এমপি হয়ে যে উদ্যোগ নিতে পারিনি সেটি তরুণ কয়েজন ভিক্ষু ও কয়েকজন তরুণ/তরুণী মিলে গড়ে তোলা সংগঠন ‘মানবিক কল্যাণ সংঘ’ নিয়েছে। ধর্মের কল্যাণের জন্য মানুষ নই, মানুষের কল্যাণের জন্যই ধর্ম। সুতরাং, শুধু বিহারে বসে থাকলে হবে না, মানুষের মনে মানবতার বোধ জাগ্রত করাতে হবে। যার প্রমাণ আজ এই অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে কয়েকজন ভিক্ষু প্রমাণ করেছেন। মানবিক কল্যাণ সংঘের ‘মানবতার পতাকা’ তলে সকলকে চারজন রোগীর চিকিৎসার জন্য নিজের স্বাধ্যমত সহযোগীতা করতে অনুরোধ জানান তিনি। এবং চারজন রোগী চিকিৎসার জন্য মানবিক কল্যাণ সংঘকে তিনি ৮০০০০ আশি হাজার টাকা প্রদান করেছেন। এবং মানবিক কল্যাণ সংঘ এর যেকোন মানব কল্যাময় কাজে পাশে বলে ব্যক্ত করেন।
 
বিশেষ বক্তায় সংগঠনের সভাপতি জ্যোতিসারা ভিক্ষু বলেন, যদিও আজকের অনুষ্ঠান আমাদের সংগঠনের আয়োজিত, কিন্তু আমি সংগঠনের সদস্য হিসেবে অনুষ্ঠানে আসিনি। আমি একজন ধর্মীয় গুরু হিসিবেও এই অনুষ্ঠানে আসিনি। আমি এসেছি চারজন রোগীকে চিকিৎসা সহায়তা করতে, আমি এসেছি মানুষের মাঝে মানবতার বোধ জাগ্রত করাতে। যার জন্য আমি এই সংগঠনের সদস্য হয়েও নিজেই টিকিট কিনেছি। তিনি তথাগত গৌতম বুদ্ধের মানবতার অমৃত বাণীকে উল্লেখ করে বলেন, বুদ্ধ বলেছেন ‘যে অসহায়কে সেবা করবে সে আমাকেই সেবা করবে’। তিনি আরও বলেন, মানুষ হয়ে যদি আমরা মানুষকে সেবা করতে না পারি, তাহলে আমাদের জন্মের স্বার্থকতা নেই। যারা আর্থিকভাবে সহযোগীতা করে উক্ত অনুষ্ঠানে এসেছেন তাদের সকলকে ও স্থানীয় এবং দূর দূরান্ত থেকে আগত শিল্পীদেরকে মৈত্রীময় শুভেচ্ছা ও কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।
সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুকে থেকে এখানে প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর...

Ads

Recommended For You

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!