ভালবাসার বড়ই অভাব

 মানুষ মানুষকে পরিপূর্ণ আনন্দ দিতে কাছে টানতে যে কাজটি সবচেয়ে বেশী করার চেষ্টা করে সেটি হচ্ছে তাকে ভালবাসা ।ভালবাসার ব্যাপ্তি এতটাই বিশাল যে, কোনো সংজ্ঞা দিয়ে একে সংজ্ঞায়িত করা যায় না। একে ব্যাখ্যা করা যায় না্ কোন শব্দ দিয়ে, বাক্য দিয়ে। তারপরও অনেকেই ব্যাখ্যাতীত এই ভালোবাসার সংজ্ঞা খুঁজে বেড়ান চিরকাল। মানুষ মানুষকে ভালবাসবে এটাই স্বাভাবিক। ভালবাসা চিরন্তন। ভালবাসা ছাড়া এক মুহুর্তও এই পৃথিবী চলবেনা।
 
কৃষক পরম মমতা দিয়ে ভালবেসে ফসল না ফলালে আমাদের অন্ন জুটতো না।শুধু কি তাই জন্মের পর নবজাতক তার পিতা-মাতার ভালবাসা না পেলে কবেই পটল তুলতো তার ইয়ত্তা নাই।কাউকে খুব বেশী ঘায়েল করতে চান! কোন বিষয়ের প্রতিশোধ নিতে চান! তাতেও দরকার ভালবাসা। কারণ ভালবেসে বন্ধু সেজে আপন করে নিয়ে একটা মানুষের আপনি যতটুকু ক্ষতি করতে পারবেন অন্য কেউ ততটা পারবেনা।
 
আজ ভালবাসা দিবস। বিশেষতঃ প্রেমিক-প্রেমিকারাই এই দিনটি খুব বেশী পালন করে।সারা বিশ্বে আজ ভালবাসার ছড়াছড়ি। এই দিবসের কারণে পাঁচ টাকার গোলাপ ক্ষেত্রবিশেষে পঞ্চাশ টাকাও বিক্রি হবে। কারণ ভালবাসা প্রকাশের অন্যতম মাধ্যম লাল গোলাপই। তাছাড়া নানান প্রকারের গিফট আদান-প্রদান তো চলবেই আজ।যারা যৌবনকাল অতিবাহিত করে ফেলেছেন তাদের অনেকে দিনটির কথা বললে একটু ব্যাঙ্গচি কাটতে চায়।আর বুড়োরাতো সরাসরি বলে ফেলে আরো কত দিবস আসবেরে বাপু, আরো কত কি দেখবো। আমি তাদের পক্ষে নই।আমি ভালবাসার কাঙ্গাল। আমি ভালোবাসা চাই..আরো, আরো, আরো।
 
অনেকেই ভাবছেন পৃথিবীতে হয়তো ভালবাসার ছড়াছড়ি আসলে কিন্তু তা নয়।পৃথিবীতে ভালবাসার বড়ই অভাব।ভালবাসার বড়ই অভাব বলেই আজ বৃদ্ধাশ্রম তৈরী হচ্ছে। যে সন্তানের মল-মূত্র পরিষ্কার করা থেকে শুরু করে সব ধরণের কাজ করে যে পিতা-মাতা মানুষ করে, সেই পিতা-মাতার প্রতি ভালবাসার অভাব বলেই তো বৃদ্ধাশ্রম, নইলে নিজের স্ত্রীকে তো কেউ এরকম নির্বাসনে পাঠায় না। ভালবাসার বড়ই অভাব বলেই তো জন্মদাতা পিতা-মাতা সন্তান কর্তৃক নির্মমভাবে নিহত হয়। পৃথিবীতে ভালবাসার অভাব বলেই প্রতিবেশীকে মাত্র এক হাত জমি নিয়ে বিরোধের কারণে খুন করতে আমরা পিছপা হইনা। শুধু কি তাই এক টাকা, মাত্র এক টাকার জন্যও আমরা মানুষ খুন করি কেবলমাত্র ভালবাসার অভাবের কারণে।
 
সেদিন তনিমা কলেজে গিয়েছিল। মেডিকেলের প্রথম বর্ষের ছাত্রী সে। তার বাবা মার বড় আশা মেয়ে ডাক্তার হবে। যাই হোক আসার পথে এক ছেলে তাকে প্রেম নিবেদন করল। তনিমার কাছে ভালবাসার অভাব ছিল হয়তো তাই সে সাড়া দেয় নি। আর ভালবাসা না পেয়ে ঐ বখাটে তনিমার মুখে ছুড়ে দিল এসিড। আচ্ছা বখাটে ছেলেটি কি আসলেই ভালবাসত তনিমাকে? না তা হতে পারেনা, তার কাছেও ভালবাসার অভাব ছিল তাই এসিড ছুড়ে মারতে দ্বিধা করেনি।পাশের বাড়ির বড় লোকের ছেলে সেদিন গল্পচ্ছলে বলছিল এক থার্টি ফার্ষ্ট নাইটে নামকরা হোটেলে পার্টিতে অংশ নিয়ে নাকি এক রাতেই সে কুড়ি হাজার টাকার বেশী খরচ করেছে।অথচ তার মনোরম ফ্লাট থেকে মাইল খানেক দুরে যে বস্তী গুলো দেখা যায় সেই বস্তীতে কত পরিবার অনাহারে রাত কাটায়। সেরকম একশত পরিবারে তার এক রাতের ফুর্তির টাকা দিয়ে অন্ন জোগানো যেত। সেই বড় লোকের ছেলেটিরও হয়তো ভালবাসার অভাব তাই ঐ বস্তীর পরিবারগুলো না খেয়ে থাকলে তার কিছু আসে যায় না।তাদের দিকে সে ফিরে তাকায় না।
 
গার্মেন্টেসের মালিকগুলো কোটিপতি থেকে বিলিয়নপতি হচ্ছে দিন দিন অথচ যে কর্মচারীগুলো রাত-দিন পরিশ্রম করে এই অর্থ উপার্জনে বড় ভূমিকা রাখছে তাদের প্রতি কোন ভালবাসা নেই মালিকের আর তাই এক হাজার টাকা বেতন বাড়াতে বললেই চোখ কপালে উঠে যায় তার।ভালবাসার অভাব বলেই যে রিক্সায় চড়ে বাবু সাব বেড়াতে আসলেন সেই রিক্সাচালককে অনেক সময় ন্যায্যা পাওনা না দিয়ে একটা চড় লাগিয়ে দেওয়া হয় বেশী চেয়েছ কেন-এই বলে। আচ্ছা মানুষ মানুষকে ভালবাসলে পারমাণবিক অস্ত্র তৈরী করা কি কখনো সম্ভব। এক অস্ত্র দিয়ে দু-চার-দশ দেশ একসাথে ধ্বংস করে দেয়া যাবে। ভালবাসার অভাবেই তো এসবের সৃষ্ঠি। ভালবাসার অভাব বলেই চারিদিকে এত হিংসা,বিদ্বেষ, হানাহানি, রাহাজানি। তাই শুধু আজকের দিনে নয় ভালবাসা চাই প্রতিদিন। ভালবাসা চাই আরো বেশী, অনেক বেশী। এ ভালবাসা শুধু প্রেমিক-প্রেমিকার জন্য নয়। এ ভালবাসা পিতা-মাতা, প্রতিবেশী থেকে শুরু করে সবার জন্য। চলুন ভালবাসতে শিখি।
লেখক : সরকারী কর্মকর্তা, বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট, হাইকোর্ট বিভাগ, ঢাকা।
সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুকে থেকে এখানে প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর...

Ads

Recommended For You

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!