ব্যাপক প্রসংশিত হল ত্রিবেদীর আলপনা উৎসব

রিগ্যান বড়ুয়াঃ প্রবারণা পূর্ণিমাকে সামনে রেখে প্রথমবারের মত ব্যতিক্রমী এক আয়োজন করে ব্যাপক ভাবে প্রসংশিত হল বৌদ্ধ যুব সংগঠন ‘ত্রিবেদী’। নন্দনকানন বৌদ্ধবিহারের সামনের চৌমুহনীতে প্রথমবারের মতো সাড়ে ১২ হাজার বর্গফুট জুড়ে ব্যতিক্রমী আলপনা আঁকে ‘ত্রিবেদী’। ২০০৩ সালে সংগঠনটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রম করে আসছে এ বৌদ্ধ সংগঠনটি। তবে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব ‘প্রবারণা পূর্ণিমা’ উপলক্ষে প্রথমবারের মত আয়োজিত হওয়া “ত্রিবেদী আলপনা উৎসব” এর সৃজনশীল এ কাজের মাধ্যমে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সহ গন মাধ্যমে বেশ সাড়া সৃষ্টি করেছে সংগঠনটি।

 
সংগঠনের সিনিয়র সদস্য অমিত বড়ুয়া জানায়, ‘প্রতিবছর ফানুস উত্তোলনের মাধ্যমে আমরা প্রবারণা পূর্ণিমা পালন করে থাকি। দেশের সার্বিক অবস্থা বিবেচনায় ভিক্ষু মহাসভার ফানুস না উড়ানোর সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে ভিন্ন কিছু করার পরিকল্পনার অংশ হিসেবেই এ আলপনা উৎসবের আয়োজন’।
তিনি আরো জানান, শুরুতে ২০ হাজার বর্গফুট এলাকা জুড়ে এ আলপনা করার কথা থাকলেও আগের দিনের বৃষ্টির কারনে তা কমিয়ে ১২ হাজার বর্গফুটে আনা হয়। এতে অংশ গ্রহন করেন ত্রিবেদীর অর্ধশতাধিক সদস্য ছাড়াও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনষ্টিটিউটের ১০ শিক্ষার্থী। বুধবার রাত ১১ থেকে ভোর পর্যন্ত এ আলপনা আঁকা হয়।
এতে সার্বিক সহযোগীতা করেন অত্র এলাকার মাননীয় ওয়ার্ড কমিশনার শৈবাল দাশ সুমন। ‘ত্রিবেদী আলপনা উৎসব’ এর উদ্ধোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সম্মানিত ডেপুটি কমিশনার (দক্ষিণ) জনাব এস.এম. মোস্তাইন হোসেন।
আগামীবার আরো বড় পরিসরে এ আয়োজন করার কথা ভাবছে এ সংগঠনটি।
সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুকে থেকে এখানে প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর...

Ads

Recommended For You

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!