বেনাপোলে বৌদ্ধ ভিক্ষুকে নাজেহাল

বেনাপোলে একজন বৌদ্ধ ভিক্ষুকে চরমভাবে শারিরীক ও অশ্রাব্য ভাষায় নাজেহাল করা হয়েছে।আর তা ভিডিও ধারণ করে সোস্যাল মিডিয়া ফেইসবুকে শেয়ার করেছে তৌফিক আহমেদ সুজন নামের বেনাপোল পৌর ছাত্রলীগের এক নেতা।

বেনাপোলের ছাত্রলীগ নেতা তৌফিক আহমেদ সুজনের শেয়ার করা পোস্ট।

ভিডিওতে দেখা যায়, একজন বৌদ্ধ ভিক্ষুকে আটক করে; তাঁকে নানাভাবে ভয় দেখিয়ে মায়ানমার ও বৌদ্ধদের বিরুদ্ধে বক্তব্য দিতে বাধ্য করে। কাঁপা কাঁপা গলায় সেই মানুষটি কিছু বলার চেষ্টা করেছেন। ভিডিওতে গালাগালি স্পষ্ট শোনা যাচ্ছে। শারীরিক আক্রমণও করেছে । অসহায় এই বৌদ্ধ ভিক্ষুর চোখে মুখে স্পষ্ট আতংকের ছাপ।

গতকাল এ রকম একটা ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হলে সারাদেশে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের কাছে ব্যাপক ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে।

একটি অসমর্থিত সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশের বাঁশখালী থানার শীলকূপ গ্রামের আনন্দ বড়ুয়া ভারতে কয়েকদিনের জন্য বৌদ্ধ ধর্মীয় গুরুর আচার-আচরণবিধি পালনের জন্য শ্রামণ/ভিক্ষু হয়। ভারত থেকে আসার পথে বেনাপোল বর্ডারের কাছে একদল লোক তাকে এভাবে নাজেহাল করে।

এই ঘটনার শুধু বৌদ্ধরা নিন্দা প্রকাশ করছে তা নয়, অন্যান্য ধর্মের লোকেরাও এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে।

শহিদুজ্জামান পাপলু নামের একজন এই ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, এইভাবে কাউকে হেনস্থা করা চরম অন্যায়। সে যেই হোক। এই অসভ্য, অমানুষদের জন্য কি কোন আইন নেই। নাকি ছাত্রলীগ করে বলেই পার পেয়ে যাবে। ঘৃণা জানাই। এই ঘৃণ্য অপরাধের সাথে জড়িত সবগুলোকে দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানাই।

যে বা যারা এই বৌদ্ধ ভিক্ষুকে চাপে ফেলে/ভয় দেখিয়ে এই ধরনের ভিডিও তৈরি করেছে তাদের সবাইকে অবিলম্বে আইনের আওতায় আনা হোক।

তৌফিক আহমেদ সুজনের ফেইসবুক প্রোপাইল।

মিয়ানমারের অভ্যন্তরীন ঘটনা নিয়ে দেশে মিডিয়া ব্যাপক প্রচারের কারণে বিভিন্ন দিক থেকে নানাভাবে দেশের বৌদ্ধ ভিক্ষুদের উপর হুমকী ও ভয়-ভীতি প্রদান করা হচ্ছে।এখন পর্যন্ত দেশের খাগড়াছড়িতে একজন বৌদ্ধ ভিক্ষুকে হামলা করে মারাত্মক জখম, চট্টগ্রামে একজন বৌদ্ধ ভিক্ষুর উপর হামলার চেষ্টা সর্বশেষ বেনাপোলের ঘটনা ছাড়ও পাথে ঘাটে ছোট-বড় বিভিন্ন নির্যাতনের স্বীকার হচ্ছে দেশের বৌদ্ধ ভিক্ষুরা। আতংকের মধ্যে বৌদ্ধ ভিক্ষুরা অতি প্রয়োজন না হলে এখন বিহার থেকেও বের হতে পারছে না।

বর্তমান এধরণের পরিস্তিতিতে দেশের জনগণের নিরাপত্তা বিধানে সরকার দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপের দাবী করছে দেশের সাধারণ জনগণ ও বৌদ্ধ সম্প্রদায়।

সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুকে থেকে এখানে প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর...

Ads

Recommended For You

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!