ফানুস পুড়িয়ে হটকারি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ (ভিডিও)

বৌদ্ধদের দ্বিতীয় প্রধান ধর্মীয় উৎসব প্রবারণা পূর্ণিমার অন্যতম আকর্ষণ মহাকারুণিক গৌতম বুদ্ধের কেশ ধাতু চুলামনি চৈত্যের উদ্দেশ্য ফানুস উড়ানোর জন্য বিভিন্ন মহল, সরকার ও প্রশাসনের পক্ষ থেকে আহ্বানের পরেও ফানুস উড়ানোতে বাধা দেয়ার কারণে নিজেদের বানানো ফানুস পুড়িয়ে প্রতিবাদ দেখিয়েছে কোঠেরপাড় বৌদ্ধ ত্রিরত্নাংকুর বিহারের যুবকরা।  গতকাল ফটিকছড়ির  কোঠেরপাড় বড়ুয়া পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সূত্র জানায়, গত মধু পূর্নিমাতে সিদ্ধান্ত হয় বিহার প্রাঙ্গন থেকে এ বছর ১০০ ফানুস উত্তোলন করা হবে। সে অনুযায়ী মধু পূর্নিমার পর দিন থেকে গ্রামের যুবকরা ফানুস বাবানো শুরু করে।  পরবর্তীতে ভিক্ষু মহাসভার সিদ্ধান্ত হয় এ বছর ফানুস না উড়িয়ে সে টাকা রহিঙ্গাদের প্রদান করা হবে। সে সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে গ্রামের যুবকরা ১০০ ফানুস না উড়িয়ে অল্প কিছু ফানুস প্রবারণায় উড়িয়ে বাকি ফানুস কঠিন চীবর দানে উত্তোলনের সিদ্ধান্ত গ্রহন করে।

গতকাল বিকাল থেকে গ্রামের যুবকরা ফানুস উত্তোলনের প্রস্তুতি নিতে গেলে গ্রামের কয়েকজন এতে বাধা প্রদান করে।  পরে অনেক আলোচনা ও অনুরোধের পরও বাবানো ফানুস উত্তোলনের অনুমুতি না পেয়ে রাতে বিহার প্রঙ্গনে নিজেদের বানানো ফানুস নিজেরাই পুড়িয়ে হটকারি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করে  কোঠেরপাড় বৌদ্ধ ত্রিরত্নাংকুর বিহারের যুবকরা।

সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুকে থেকে এখানে প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর...

Ads

Recommended For You

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!