বিহারের জমি দখলের চেষ্টা:

পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতির নির্দেশে সীতাকুন্ডে বৌদ্ধ বিহারে হামলা-ভাংচুর

চট্টগ্রামের সীতাকুন্ড থানার একটি বৌদ্ধ বিহারে স্থানীয় পৌর আওয়ামীলীগ এর সভাপতির নির্দেশে হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

স্থানীয় একাধিক সূত্র জানিয়েছে, গত সোমবার (২৭ নভেম্বর) সকালে উপজেলার সীতাকুন্ড চন্দ্রজ্যোতি বৌদ্ধ বিহারে হামলা ও ভাঙচুর করে একদল দুবৃত্ত।

বিহার কমিটির সভাপতি পিযুষ বড়ুয়া অভিযোগ করেছেন সীতাকুন্ড পৌর মেয়র ও পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি বদিউল আলমের নির্দেশে এই হামলা হয়েছে।

তিনি অভিযোগ করে বলেন,বৌদ্ধ বিহারের পুরাতন জায়গায় মন্দিরের উন্নয়নে গৃহ নির্মানকালে সীতাকুন্ড পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি বদিউল আলমের নির্দেশে তাহার পুত্র সাঈদী তাহার দলবল নিয়ে হামলা ও ভাঙচুর করে।

এর আগে ১৮ নভেম্বর (সোমবার০ সীতাকুন্ড পৌরসভার মেয়রের ছেলে সাঈদীর নেতৃত্বে ১৫/২০ জনের একটি দল বিহারের জায়গা দখল করে সিএনজি স্টেশন বানানোর পায়তারা করে। ফলে বিহারে হামলা করে নির্মাণ স্থাপনায় থাকা জিনিষ পত্র ভাংচুর করে। যাবার সময় অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। খবর পেয়ে বিহার কমিটির সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা মানিক লাল বড়ুয়া বাদী হয়ে মডেল থানায় সংশ্লিষ্ট মেয়রের বিরুদ্ধে মামলা করতে গেলে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তাদের বিরুদ্ধে মামলা না করতে বলে ৩ /৪ নং আসামী জয়নাল আবেদীন ও সাজ্জাদ হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করতে বলে, তা গ্রহন করে।

এ ব্যাপারে সীতাকুন্ড থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ ইফতেখার উদ্দীন বলেন, বিহারের একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। হামলাকারীদের চিহ্নিত করে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

উল্লেখ্য, ঢাকা চট্টগ্রাম হাইওয়ে রোড করার সময় বৌদ্ধ বিহারকে সরকার নতুন জায়গা দিলে সেখানে নতুনভাবে বৌদ্ধ বিহার হয়। পুরাতন বৌদ্ধ বিহারের কিছু জায়গা বিহারের দখলে থাকে। এখানে ৩৬টি বৌদ্ধ পরিবারের বসবাস।

এ ব্যাপারে বৌদ্ধদের মাঝে আতংক বিরাজ করছে।

সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুকে থেকে এখানে প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর...

Ads

Recommended For You

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!