পুষ্পাঞ্জলি অর্পণের মধ্যে দিয়ে রাঙামাটিতে এমএন লারমার ৩৪তম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত

সুপ্রিয় চাকমা শুভ , রাঙামাটি :

পার্বত্য চুক্তি বিরোধী ও জুম্ম স্বার্থ পরিপন্থী সকল কার্যক্রম প্রতিরোধ করুণ, পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি বাস্তবায়নে অধিকতর আন্দোলন সংগঠিত করুণ এই স্লোগানকে সামনে রেখে এবারে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির আয়োজনে এবং বিভিন্নঅঙ্গ সংগঠনের পুষ্পাঞ্জলি অর্পণের মধ্যে দিয়ে রাঙামাটিতে এমএন লারমার ৩৪তম মৃত্যু বার্ষিকী যথাযোগ্য ভাব মর্যাদায় দিবসটি পালিত হয়েছে। ১০ই নভেম্বর সকালে রাঙামাটি জেলা শিল্ডকলা একাডেমী থেকে রাঙামাটি মহাসড়ক প্রদক্ষিণ করে বনরুপা পেট্রোল পাম্প পর্যন্ত প্রভাতফেরী শেষে আবারও রাঙামাটি জেলা শিল্ডকলা একাডেমীতে জুম্ম জাতির শোক সভা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
আলোচনা সভায় পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির রাঙামাটি জেলা কমিটির সভাপতি সুবর্ণ চাকমার সভাপতিত্বে প্রধাণ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির সভাপতি ও পার্বত্য চট্ট্রগাম আঞ্চলিক পরিষদের চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা(সন্তু) , বিশেষ অতিথি হিসেবে হিসেবে পার্বত্য নাগরিক কমিটির সভাপতি গৌতম দেওয়ান, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য ও পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির সদস্য গৌতম কুমার চাকমা, পার্বত্য চট্টগ্রাম আদিবাসী ফোরামের সভাপতি প্রকৃতি রঞ্জন চাকমা, পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির মহিলা বিষয়ক সম্পাদক কল্পনা চাকমা, বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী রনজিৎ দেওয়ান, রাঙামাটি জেলা যুব সমিতির সাধারণ সম্পাদক অরুণ ত্রিপুরা, পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুমন মারমা সহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও প্রিন্ট ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মী উপন্থিত ছিলেন।

জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা(সন্তু) বক্তব্য বলেন, ১০ই নভেম্বর মহান নেতা এমএন লারমাকে হত্যাকান্ডে একটি পূর্ব পরিকল্পিত ছিল।বিভিন্ন শাসকগোষ্ঠী, দেশী-বিদেশী ও বিভিন্ন মহল মহান নেতার হত্যান্ডে জড়িত রয়েছে। এছাড়া পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়ন ও আত্মনিয়ন্ত্রণ অধিকার আদায়ের জন্য যুব সমাজ ও সুশীল সমাজকে এগিয়ে আসার জন্য তিনি আহ্বান জানান। তিনি আরো বলেন, পাবত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়নের অধিকতর আন্দোলনের জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথে নামতে হবে। জুম্ম সমাজে যারা সুবিধাবাদী তারা বিভিন্ন ষড়যন্ত্র করে জুম্ম যুব সমাজকে ধ্বংস করার পায়তাতারা করতেছে বলে তিনি মহান জুম্ম জাতির নেতা এমএন লারমার শোক সভাতে তিনি এ মন্তব্য করেন।
তিনি আরো বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে ২০ বছর পেড়িয়ে গেলেও পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ণ ও পাহাড়ে কোন প্রকার উন্নয়নের ছোয়া দেখা মেলেনি। পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ণ না হলে পার্বত্য এলাকাতে উন্নয়নের ছোয়া অত্র পার্বত্য চট্টগ্রামে উন্নয়নের সাধন হবে না বলে তিনি মন্তব্য করেন।

সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুকে থেকে এখানে প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর...

Ads

Recommended For You

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!