চট্টগ্রামে রুমি বড়ুয়া’র গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার, স্বামী গ্রেপ্তার

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বেতাগী গ্রাম থেকে রুমি বড়ুয়া (৩৮) নামে এক সেনা সদস্যর স্ত্রীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
নিহত রুমি বড়ুয়া বান্দরবান কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষিকা এবং সেনাসদস্য নান্নু বড়ুয়া’র স্ত্রী। স্বামী নান্নু বড়ুয়া (রিন্টু) তাকে হত্যা করে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এই ঘটনায় সেনা সদস্য স্বামী নান্নু বড়ুয়াকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
প্রকাশিত একাধিক সংবাদ সূত্রে জানা যায়, নান্নু বড়ুয়া স্ত্রী রুমি বড়ুয়াকে নিয়ে গত রবিবার বিকালে বাড়িতে আসেন।রাত ১২টার দিকে রুমি বড়ুয়াকে গলাকেটে হত্যা করা হয়। পরে নান্নু বড়ুয়ার চিৎকারে আশপাশের মানুষ ঘটনাস্থলে গিয়ে রুমি বড়ুয়ার গলাকাটা লাশ দেখতে পায়। ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক বিরোধের জের ধরে স্বামী নান্নু বড়ুয়া স্ত্রী রুমি বড়ুয়াকে গলা কেটে হত্যা করে।
রোববার দিবাগত (১৩ আগস্ট) রাত ২টায় পুলিশ খবর পেয়ে ওই মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। হত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করে রাঙ্গুনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)ইমতিয়াজ মো. এহসানুল কাদের ভূইয়া গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, পুলিশ গলাকাটা অবস্থায় রুমি বড়ুয়ার মরদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। সেই মামলায় তার স্বামী সেনা সদস্য নান্নু বড়ুয়াকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। তবে কি কারণে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে তা এখনও নিশ্চিত নয় জানিয়ে ওসি বলেন, ‘এ বিষয়ে এখন মন্তব্য করতে পারবো না। তদন্ত চলছে।’
নিহত রুমি বড়ুয়া বান্দরবান সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক দীপ্তি কুমার বড়ুয়ার কন্যা, রুমি বান্দরবান কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজে শিক্ষক হিসাবে কর্মরত ছিলেন।
সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুকে থেকে এখানে প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর...

Ads

Recommended For You

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!