‘আমার বিরুদ্ধে কোনো তদন্ত হচ্ছে না’

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকালে ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রচার কর্তৃপক্ষের সঙ্গে রাশিয়ার গোপন যোগাযোগের অভিযোগের ডালপালা কোনোভাবেই যেন ছাঁটা যাচ্ছে না। এখনো সেটা নিয়ে কথা উঠছে এবং ট্রাম্প নিজেও সেগুলো নিয়ে বারবার টানাহেঁচড়া করে যাচ্ছেন। সর্বশেষ গত বৃহস্পতিবার তিনি দাবি করেছেন, তাঁর সঙ্গে রুশ আঁতাত নিয়ে কোনো রকম তদন্ত বর্তমানে হচ্ছে না।

এনবিসি নিউজকে বৃহস্পতিবার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, ‘আমি জানি, আমার বিরুদ্ধে তদন্ত হচ্ছে না। ’ তাঁর দাবি, কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা ব্যুরোর (এফবিআই) সদ্য বরখাস্ত প্রধান জেমস কোমি নিজেই তাঁকে তদন্ত হচ্ছে না বলে আশ্বস্ত করেছেন। গত মঙ্গলবার কোমিকে বরখাস্ত করেন ট্রাম্প।

ট্রাম্প এনবিসি নিউজকে আরো জানান, তাঁর বিরুদ্ধে কোনো তদন্ত চলছে কি না, সেটা নিশ্চিত হতে তিনি কোমিকে তিনবার জিজ্ঞাসা করেছিলেন। একবার নৈশভোজে অংশ নিয়ে মুখোমুখি এবং দুবার টেলিফোনে। ট্রাম্পের দাবি, নতুন প্রশাসনের অধীনে কোমি এফবিআইয়ের প্রধান পদে বহাল থাকতে চেয়েছিলেন এবং কোমির অনুরোধেই হোয়াইট হাউসে ওই নৈশভোজের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে ট্রাম্প তাঁকে প্রশ্ন করেছিলেন, ‘যদি সম্ভব হয়, তা হলে আমাকে বলুন তো, আমার বিরুদ্ধে কি তদন্ত হচ্ছে?’ উত্তরে কোমি বলেছিলেন, ‘আপনি তদন্তাধীন নন। ’ এদিকে কোমির ঘনিষ্ঠ এফবিআইয়ের এক সাবেক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে এনবিসি পরে জানায়, কোমি নন, নৈশভোজের আয়োজন করেছিল খোদ হোয়াইট হাউস। নিজের বিরুদ্ধে কোনো তদন্ত হচ্ছে কি না, তা জানতে ওই আয়োজন করা হয়।

কোমিকে বরখাস্তের ব্যাপারে বৃহস্পতিবার ট্রাম্প জানান, নিজের একক সিদ্ধান্তে তিনি কাজটা করেছেন। তিনি বলেন, ‘কোনো রকম সুপারিশ ছাড়াই আমি তাঁকে বরখাস্ত করতাম। ’ তিনি আরো বলেন, ‘আমি যখন সিদ্ধান্তটা নিয়েছি, ঠিক তখন নিজেকে আমি একটা কথা বলেছি। জানেন নিশ্চয়ই, আমি আগেই বলেছি, ট্রাম্পের সঙ্গে রাশিয়াকে জড়িয়ে এসব বানানো গল্প। ’ অথচ এর আগে ট্রাম্প জানিয়েছিলেন, অ্যাটর্নি জেনারেলের সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি কোমিকে বরখাস্ত করেছেন।

এসবের মধ্যে নিউ ইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট পদে অভিষেকের এক সপ্তাহের মাথায় ট্রাম্প এক নৈশভোজে এফবিআই প্রধান কোমিকে তাঁর প্রতি অনুগত হওয়ার জন্য চাপ দিয়েছিলেন। সেখানে উপস্থিত প্রেসিডেন্টের দুজন সহযোগীর বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যমটি জানায়, ট্রাম্পের প্রতি আনুগত্য প্রকাশে তিনি অস্বীকার করেন, তবে প্রেসিডেন্টের প্রতি সৎ থাকার অঙ্গীকার করেন।

সূত্র : এএফপি, বিবিসি।

সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুকে থেকে এখানে প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর...

Ads

Recommended For You

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!