মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতা ২০১৭:

আদিবাসীদের ঐতিহ্যবাহী পিননে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ প্রতিযোগি জেসিয়া

বাংলাদেশের আদিবাসীদের ঐতিহ্যবাহী পোষাক পরে চীনের শিমেলং ওশান এলাকার তিন কিলোমিটার রাস্তা হেঁটেছেন ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ জেসিয়া ইসলাম। অন্য প্রতিযোগীরা পরেছিলেন তাঁদের দেশের ঐতিহ্যবাহী পোশাক।

চীনের শিমেলং ওশানে গত ২ নভেম্বর মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতার ৬৭তম আসরের প্রতিযোগীরা দলবেঁধে তিন কিলোমিটার পথ হেঁটেছেন। তাদের প্যারেড দেখতে জড়ো হয় হাজার হাজার দর্শক। বেশিরভাগই ছিল তরুণ ও স্কুল শিক্ষার্থী।

আদিবাসীদের ঐতিহ্যবাহী পোষাকে মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতার বাংলাদেশের সুন্দরীকে দেখে সোস্যাল মিডিয়াতে মুগ্ধতা প্রকাশ করেছে দেশের অনেক আদিবাসী তরুণ-তরুণী।

জিনিয়া প্রত্যুষা নামের একজন প্রতিযোগিতার সংক্ষিপ্তি বর্ণনা দিয়ে ফেইসবুকে লিখেছে, ‘ধন্যবাদ জেসিয়া! বাংলাদেশকে রিপ্রেজেন্ট করতে গিয়ে নিজ দেশের চাকমা নৃগোষ্ঠীদের ঐতিহ্যবাহী পোশাক পিনোন-হাদিকে বেছে নিয়েছেন!’

উল্লেখ্য, প্যারেডের জন্য আয়োজকরা ১২০ প্রতিযোগীকে ভাগ করে দেন মহাদেশ অনুযায়ী। স্বাভাবিকভাবে এশিয়া দলে ছিলেন জেসিয়া। তারা প্রত্যেকে পরেছিলেন নিজ নিজ দেশের ঐতিহ্যবাহী পোশাক।

আগামী ১৮ নভেম্বর চীনের সানাইয়া সিটি এরেনায় হবে প্রতিযোগিতার ফাইনাল। ওইদিন নতুন মিস ওয়ার্ল্ডের মাথায় মুকুট পরিয়ে দেবেন বর্তমান বিশ্বসুন্দরী স্টেফানি দেল ভালে।

সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুকে থেকে এখানে প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর...

Ads

Recommended For You

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!