অকৃতজ্ঞ ব্যক্তি মহা পাপী; প্রসংঙ্গ: ভদন্ত ধর্মতিষ্য মহাস্থবির (স্বর্গপুরী ভান্তে)

লিখেছেন: Autonomous Prince (Mui Shasan): এফবি তে একটি ভিডিও শেয়ার হওয়ায় জনগণের মন্তব্যের সীমা নেই ৷ নানা জনের নানা মত, যারা প্রকৃত ভান্তের ভক্ত তাদের অনেকের শ্রদ্ধা পরিহাণী হয়েছে; অনেকের তার জন্য করুণা হচ্ছে, অনেকে কিভাবে এ পরিস্থিতি থেকে তাকে বের করে আনা যায় সে চেষ্টা চালাচ্ছে ৷

আর যারা বিরোধী তারা দারুণ একটা টপিক পেয়েছে যা দিয়ে বনবিহারসহ ধর্ম নিয়ে পর্যন্ত খারাপ দৃষ্টিভঙ্গি উপস্থাপন করছে ৷

যারা নিন্দা জানাচ্ছে, নানা ব্যঙ্গাত্বক কথাবার্তা বলছে, যাদের শ্রদ্ধা পরিহানী হচ্ছে তারা আসলে ভগবান বুদ্ধের জন্ম-জন্মান্তরে কঠোর সাধনায় অর্জিত সত্য ধর্মটি নূন্যতম অংশটিও বুঝেনাই ৷ জোর দিয়ে দাবি করে আবার আমরা বৌদ্ধ ৷

প্রথমে বলি, যদি কোন প্রব্রজ্জিত দুঃশীলও হয় তার দশটি গুণ থাকে ৷ কিন্তু ভদন্ত ধর্মতিষ্য মহাস্থবির প্রব্রজ্জিত জীবনের ২২টি বছর পার করেছেন যতদূর সম্ভব শীল-সমাধি-প্রজ্ঞা অনুশীলের ধারা ৷ তিনি একসময় কঠোরভাবে ধুতাঙ্গশীল পালন করেছিলেন দুঃখমুক্তির আশায় ৷ এজন্য বহু উপাসক-উপাসিকা তার কাছে গিয়ে পিণ্ড দান দিত ৷ নানা অসুখে-বিসুখে প্রার্থনা করত, পানি সই করে নিত; আর বিশ্বাস করতো বিধায় বহুজনের উপকারও হত ৷ এগুলো তার বিশুদ্ধ ব্রহ্মচর্য (শীল পালনের) ফলস্বরূপ উপকার হতো ৷ যতদূর সম্ভব মানুষকে পুণ্য হেতু করে দেওয়ার জন্য সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালিয়েছিলেন ৷

প্রকৃত সত্য ঘটনা, আপনি দেখবেন রিকশাওয়ালাকে নিয়ে, কুলিকে নিয়ে পত্র-পত্রিকায় খুব একটা লেখা-লেখি হয়না কিন্তু; লেখা-লেখি হয় প্রধান মন্ত্রী, সেলিব্রেটি, ধনী, সন্মানিত ব্যক্তিদের নিয়ে ৷ কখনো দেখা যায় খুব প্রশংসা করছে কিন্তু সেই একই পত্রিকা কিছু দিন পর দূর্নামে রত এটা হলো মিডিয়ার কাজ ৷

একটা কুচক্রি মহল ধর্মতিষ্য ভান্তেকে টার্গেত করেছে কয়েক বছর আগে থেকে ৷ যেহেতু তিনি অনেক টাকা পয়সা দান পান সেই টাকা গুলো আত্মসাৎ করে দেয়ার জন্য তার কাছাকাছি বহু ব্যক্তি থাকত ৷ পরে লোভের বশবর্তী হয়ে যাহাতে পুরো টাকা হাটিয়ে নেয়া যায় সেই ব্যবস্থা করা হয়েছিল বৈদ্য দ্বারা মন্ত্র প্রয়োগ করে ৷

যে মহিলাটি চট্টগ্রামে থাকে সেই মহিলাটি তন্ত্রবিদ্যার অধিকারী, একমাত্র টাকার লোভে একটা গ্রুপ তৈরি করে ঔষধ (দাড়ু) প্রয়োগ দ্বারা ধর্মতিষ্য ভান্তেকে তাদের নিয়ন্ত্রনে নিয়ে এখন টাকা হাটিয়ে নেবে এটাই তাদের আসল উদ্দেশ্য ৷

কিন্তু আমরা এতটাই অকৃতজ্ঞ যে; কোথায় তার দুর্দিনে তাকে কিভাবে সহযোগীতা করা যায়, তার সুস্থ-সুন্দর ব্রহ্মচর্য জীবন কামনা করবো সে কথা না বলে আমরা আছি দূর্নাম রটানোর তালে ৷ অকৃতজ্ঞ ব্যক্তি মহা পাপী ৷ একদিন এমনই ছিল আপনি ছিলেন তার পরম ভক্ত আজ হয়তো ঢিল ছুড়ছেন ৷ একসময় আমরাও ধর্মতিষ্য ভান্তেকে অনেক প্রশংসা করেছি যখন বিপদে পড়েছি, আজ একটু ১৯/২০ হলো বদনাম করছি আমরা হলাম অকৃতজ্ঞ মানুষ ৷

তিনি প্রব্রজ্যা জীবন ২২ বছর পার করছেন আপনি কয়বার প্রব্রজ্যা নিছেন? ২২ দিন থাকতে পারছেন? ২২ মাস থেকেছেন কখনো? শুধু অন্যের দোষ দেখি অকৃতজ্ঞ নরাধম ৷

আর তিনি কিন্তু বৌদ্ধ ধর্মের মূল না ৷ তার কিছু হলে ধর্মের বিশাল অংশ ক্ষতি হবে তা কিন্তু না ৷ ধর্ম চলে তার নিয়মে ৷ আমরা যদি নিজের নিয়মে না চলে ধর্মের নিয়মে চলি ধর্মের জয় হবেই হবে ৷ যারা অন্ধভক্ত তারাই উল্টাপাল্টা প্রলাপ বকবে ৷ তারাই বদনাম করবে, তারাই ধর্মের নামে দুর্নাম রটাবে ৷ তাহলে আপনি বলতে পারেন ধর্মতিষ্য ভান্তের কারণে হয়তো এসব কিন্তু তার হয়তো অতীত অকুশল কর্মের কারণে এ বিপাক কিন্তু আপনিতো নতুন অকুশল কর্ম করে যাচ্ছেন ৷ ধর্মকে রক্ষা করার জন্য পরিশুদ্ধ সংঘ অতীতে ছিল, বর্তমানে আছে, ভবিষ্যতেও থাকবে ৷ আপনি ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হোন সব একদিন ঠিক হবে ৷ এক মাস, ছয় মাস, এক বছর তারপর সব ঠাণ্ডা ৷ বিশ্বাস না হলে বাজি ধরবো 😃 ৷

কোন স্বাভাবিক সুস্থ মানুষ নিজেকে বুদ্ধ, অর্হৎ সরাসরি দাবি করতে পারেনা ৷ ধর্মতিষ্য ভান্তে এখন বৈদ্যর মন্ত্রশক্তিতে আক্রান্ত, অসুস্থ ৷ সে অসুস্থ তাই প্রলাপ বকছেন কিন্তু আপনিতো সুস্থ থেকেও অসুস্থ কারণ তার চেয়েও বড় প্রলাপ আপনি বকছেন ৷ আপনি আমি যদি সুস্থ কথাবার্তা না বলি তাহলে এই অসুস্থতার জন্য হাসপাতাল না, আসল পাতালে যেতে হবে ৷ তাই আসুন কথা বার্তায় সতর্কতা অবলম্বন করি ৷

তার যদি সঠিক চিকিৎসা তথা সেই কুচক্রিমহলের হাত থেকে রক্ষা করা না যায় তার জীবনটাও বিপন্ন হওয়ার আশংকা করা হচ্ছে ৷ আমাদের উচিত তার সুস্থতা কামনা করা, প্রার্থনা করা ৷ তিনি তারাতারি সুস্থ হয়ে আমাদের মাঝে ফিরে আসুক ৷ পারলে সহযোগীতার হাত বাড়ান ৷

বি:দ্র: কেউ ব্যক্তিগতভাবে নিবেননা ৷

সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুকে থেকে এখানে প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর...

Ads

Recommended For You

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: Content is protected !!